দুই রাকাত নামাজে ৬০ টি মাসয়ালা

নিয়মিত নামাজ আদায় করে থাকেন, কিন্তু তাদের নামাজ সঠিক হয়না। অপরদিকে যারা নতুন নামাজ শিখছেন কিংবা নামাজ পড়া শুরু করবেন ভাবছেন তারা অবশ্যই দুই রাকাত নামাজে ৬০ টি মাসয়ালা এর সঠিক নিয়মগুলো শিখে নিন

একজন মানুষ একাকী নামায পড়ার জন্য যে নিয়ম গুলো রয়েছে সেই সম্পর্কে বিস্তারিত জানবো।

এই গুলোর মধ্যে ফরজ ছুটে গেলে পুনরায় নামাজ পড়তে হবে। এবং ওয়াজিব ছুটে গেলে নামাযের শেষ সোসিজদাহ করতে হয়, না হয়ে নামাজ ভেঙ্গে যাবে। এবং কিছু সুন্নাত রয়েছে এই গুলো পালন করা উত্তম। তাই দুই রাকাত নামাজে ৬০ টি মাসয়ালা গুলো জেনে নিন।


নামাযের ১ম রাক আতে রুকুর আগে ১১ টি মাসআলাহ।

১)– হাত উঠান সুন্নাত। ২)– তাকবীরে তাহরীমা (আল্লাহু আকবার)  বলা ফরয।
৩)– হাত বাঁধা সুন্নাত। ( মেয়েদের জন্য হাত রাখা সুন্নাত) ৪)– সানা পড়া সুন্নাত।
৫)– আ`উজুবিল্লাহ পড়া সুন্নাত। 6)– বিসমিল্লাহ বলা সুন্নাত।
৭)– আলহাদু শরীফ পুরা পড়া ওয়াজিব। ৮)– আলহাদুর শেষে  (আমিন)  বলা সুন্নাত।
৯)– সূরার শুরুতে বিসমিল্লাহ পড়া মুস্তহাব। ১০)– সূরা মিলান ওয়াজিব।
১১)*- ক্বিরাআত পড়া ফরয

রুকুতে ৬ টি মাসআলাহ।

১)– রুকুতে যাওয়ার সময় (আল্লাহু আকবার)  বলা সুন্নাত। ২)– রুকু করা ফরয।
৩)– রুকুতে দেরী করা ওয়াজিব।  ৪)– রুকুতে থাকিয়া (সুবহানা রব্বীয়াল আজিম) তিন বার পাঁচবার অথবা সাতবার বালা সুন্নাত।
৫)– রুকু হইতে উঠিবার সময় ( সামি আল্লাহুলীমান হামিদা,রব্বানা লাকাল হামদু)  বলা সুন্নাত।

৬)– রুকু হইতে সোজা হইয়া দাঁড়িনো ওয়াজিব।

প্রথম সিজদাতে ৬ টি মাসআলাহ।

১)- সিজদায় যাওয়ার সময় আল্লাহু আকবার  বলা সুন্নাত।

২)- সিদাহ করা ফরয।
৩)– সিজদাতে দেরী করা  ওয়াজিব।

৪)– সিজদাতে থাকিয়া ( সুবহানা রব্বিয়াল আলা।) তিনবার পাঁচবার সাতবার বলা সুন্নাত।
৫)– সিজদা হইতে উঠিবার সময় ( আল্লহু আকবার)  বলা সুন্নাত।

৬)– দুই সিজদার মাঝখানে সোজা হইয়া বসা ওয়াজিব।

আরো পড়ুন ----   নামাজের ফরজ ওয়াজিব সুন্নত মুস্তাহাব সমূহ
নামায ভঙ্গের কারণ সমূহ

দ্বিতীয় সিজদাতে ৬টি মাসআলাহ।

১)– সিজদায় যাওয়ার সময় ( আল্লহু আকবার)  বলা সুন্নাত। ২)– সিজদা করা ফরয।
৩)– সিজদাতে দেরী করা ওয়াজিব। ৪)– সিজদাতে থাকিয়া ( সুবহানা রব্বিয়াল আলা)  তিনবার  পাঁচবার  অথবা  সাতবার  বলা সুন্নাত।
৫)– সিজদা হইতে উঠিবার সময় (আল্লাহু আকবার)  বলা সুন্নাত। ৬)– সিজদা হইতে সোজা হইয়া দাঁড়ানো ওয়াজিব।

দ্বিতীয় রাকাআতে রুকুর আগে ৭টি মাসআলাহ

১)– হাত বাঁধা সুন্নাত ২)– বিসমিল্লাহ বলা সুন্নাত।
৩)– আলহামদু শরীফ পরা পড়া ওয়াজিব। ৪)– আলহামদুর শেষে আমিন বলা সুন্নাত।
৫)– সূরার শুরুতে বিসমিল্লাহ পড়া  মুস্তাহাব। ৬)– সূরা মিলানো ওয়াজিব।
৭)*- ক্বিরাআত পড়া ফরয।

  ২য় রাকআতের রুকু সিজদার মাসআলাহ ১ম রক’ আতের মত, তবে শুধু তাহাতে ২য় সিজদায় সিজদা হইতে সোজা হইয়া দাঁড়ানো ওয়াজিব, এর পরিবর্তে সিজদা হইতে সোজা হইয়া বসা ওয়াজিব  হইবে।

আখিরী বৈঠকে ৫ টি মাসআলাহ


১)– আখিরী বৈঠক ফরয। ২)– আত্তাহিয়্যাতু  পড়া ওয়াজিব।।
৩)– দুরুদ শরীফ পড়া সুন্নাত।

৪)– দু’আয়ে মাছুরা পড়া সুন্নাত।
৫)- আসসালামু আলাইকুম বলিয়া নামাজ শেষ করা ওয়াজিব।

৬০ নং মাসআলাহ ঃ ফরয নাময দাড়াইয়া পড়া ফরয। সুন্নাত নফল বসিয়া পড়া জায়িয আছে। তবে বসিয়া পড়িলে অর্ধেক সাওয়াব হবে।

এই ধরনের আরো আপডেট পেতে আমার ওয়েবসাইট পহেলা ডট ইনফো এর সাথে থাকুন এবং আমার ওয়েবসাইট ভিজিট করুন।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *