ফেসবুক আইডি সুরক্ষিত রাখার উপায়

আমরা যারা ফেসবুক চালায়াই সবাই একটা চিন্তায় থাকি, কখন জানি আমার ফেসবুক আইডি হ্যাক বা নষ্ট  হয়ে যায়। তার চিন্তা নয় নিচের দেওয়া নিয়ম অনুযায়ী ফেসবুক চলালে আপনার আইডি কখনো হ্যাক বা নষ্ট  হবে, তাই ফেসবুক আইডি সুরক্ষিত রাখার উপায় গুলো জেনে নিন ।

প্রতিনিয়তই এই প্রশ্নগুলো করে থাকেন । কি করে আইডি Full Secure রাখব যেন Hack না হয়? কি কি করলে আমার আইডি পুরোপুরি নিরাপদ?

 আবার অনেকেই এসে বলে, আমার আইডি Hack হয়ে গেছে । আমার আইডি ডিজেবল হয়ে গেছে । ইত্যাদি ।

ফেসবুক হ্যাক থেকে বাচাঁর উপায়

Facebook Account হ্যাক রোধে ফেসবুক যে সব সিকিউরিটি সিস্টেম রাখছে তা যদি আপনি পুরোপুরি ব্যবহার করেন,

 তাহলে আপনার আইডি কোনো ভাবেই হ্যাক সম্ভব না।হ্যাকার কখনও ফেসবুক সার্ভারে Attack করে আইডি হ্যাক করবেনা ।

হ্যাকার আপনার দুর্বলতা কাজে লাগিয়ে আপনার আইডি হ্যাক করবে । তাই ফেসবুক আইডি সুরক্ষিত রাখার উপায় গুলো জানুন যেসব দুর্বলতা একজন হ্যাকার খোজে তা হলো:

১. জন্মতারিখ ৯০% ক্ষেত্রে
২. Trusted contact
৩. Phishing লিংকের ব্যবহার
৪. key-logger এর ব্যবহার
৫. আপনার পাসওয়ার্ড কতটা শক্তিশালী
৬. আপনার Email Address.

এজন্য এসব বিষয়ে আপনাকে সবসময়ই সতর্ক থাকতে হবে । কিভাবে সতর্ক থাকবেন তা হলো।

১. জন্মতারিখ সর্বসময়ই Only me রাখবেন

অনেকেই Birthday wish পেতে অনলি মি করেন না । তাদের কাছে আমার প্রশ্ন,

 উইশটাই বড় নাকি আপনার আইডিটা? জন্মতারিখ হ্যাকার জেনে গেলে আপনার আইডিটা যেমন Hack করতে পারবে

তেমনই আপনার আইডির সমস্ত Text, Photo, Post সহ Everything information স্নিফিং করতে পারবে ।

২. আপনার আইডিতে Trusted Contact কোনো ভাবেই ৫টির নিচে রাখা উচিত নয় ।

যাদের Trusted Contact সংযুক্ত করা নাই, তারা Settings>>>Security and Login>>> Choose 3 or 5

 friends as your trusted অপসনে যেয়ে ৫ জন বন্ধুকে Add রাখবেন । আইডি হ্যাকের অন্যতম কারণ এটাই ।

৩. আপনাকে অনেকেই হয়তো মেসেজ করে বলবে এই লিংকে ক্লিক করে এটা করো বা সেটা করো । অথবা

 এই লিংকে ক্লিক করে অমুক/তমুক এটা পাইছে ওটা পাইছে এমন লোভনীয় প্রস্তাব করবে । সে আপনার আপনজনও হতে পারে ।

এরকম লিংকে আপনি সরাসরি ক্লিক করবেন না । ওটা ফিসিং লিংক । ক্লিক করলেই আপনার ইমেইল+পাসওয়ার্ড হ্যাকারের হাতে চলে যাবে ।

আবার এমনও হয়, ফেসবুকের মতো ইন্টারফেস Show করে । সেখানেও লগিন দিবেন না । লগিন দিলে আপনার ইমেইল

 আর পাসওয়ার্ড হ্যাকার পেয়ে যাবে । সোজা কথা অপ্রয়োজনে কোনো লিংকে ক্লিকই করবেন না যেই তা করতে বলুক ।

৪. কি-লগার অনেক পুরাতন পদ্ধতি

এটা একটা ভাইরাস টাইপের প্রোগ্রাম । আপনি Account এ লগিন করতে গেলে যে Email+password ব্যবহার করবেন

সেটা এই ভাইরাস ফলো করবে এবং হ্যাকারকে জানিয়ে দিবে । Key-Logger ট্রান্সফার হয় মুলত ব্লুটুথ/শেয়ারইট/False file download/পেনড্রাইভ/
মেমরিকার্ড এসবের মাধ্যমে ।

এজন্য যখন লগিন করবেন তখন আপনার ইমেইল আর পাসওয়ার্ড ভুল টাইপ করবেন এরপর যে ভুল গুলো করছেন সেটা কেটে দিবেন ।

আমি সবসময়ই তাই করি । যেমন আমার পাসওয়ার্ড যদি হয় : PaSsw0Rd তাহলে আমি লগিন করার টাইপে লিখি  partSsw0RLd

 এখন আমি ভিতরে যে অতিরিক্ত rt আর L লিখছি সেগুলো কেটে দিই । এটা কি-লগার ধরতে পারেনা ।

 ৫.  একটা শক্তিশালী পাসওয়ার্ড ব্যবহার করুন ।

 কখনই আপনার ফোন নাম্বার বা ইমেইল এড্রেসটা হুবহু পাসওয়ার্ড হিসাবে ব্যবহার করবেন না ।

 পাসওয়ার্ডের ভিতর (@#$%&+*!?/|£¢€¥√π÷׶∆~|℅=][{}~) এসব Symbol গুলো একাধিকবার ব্যবহার করবেন ।

৬.আইডিতে ব্যবহৃত Email এড্রেসটা সিকিউর রাখবেন ।

ইমেইল হ্যাক যেন না হয় । Yahoo, Gmail, Hotmail আরো যতো সার্ভার আছে, তাদের নিয়ম হলো, যদি কেউ ১ বছর ইমেইলে লগিন না করে,

 তাহলে সেই ইমেইল আইডি তারা ডিলিট করে দেয় আর আপনি আবার সেই আইডি খুলতে পারবেন । এভাবেও অসংখ্য আইডি হ্যাক হয় ।

 সুতরাং আপনি আপনার আইডিতে ব্যবহৃত ইমেইলটা দিনে একবার না পারেন সপ্তাহে বা মাসে একবার হলেও লগিন দিন ।

ফেসবুক আইডি  নষ্ট হয় কেন

অনেকেই ফেসবুক হ্যাকিং এর
শিকার হয়ে প্রিয় আইডি
হারাচ্ছেন,
মিছেমিছি হ্যাকারকে দোষ
দিচ্ছেন !


আরে ভাই আইডি হ্যাক করা এত সহজ
না, আপনি যখন হ্যাকারের পাতা
ফাঁদে পা দেন তখনই আইডি হ্যাক হয় ।


আবার অনেকের, বিশেষ করে
মেয়েদের টাইম লাইনে পর্ণো ছবি
পোস্ট করে নানা কুবন্ধু, আর মেয়েটি
বিব্রতকর অবস্থায় পড়ে, এটাা নিজের দোষ ।

আরো পড়ুন--- . ছেলে ও মেয়েদের ফেসবুক আইডি নাম
.নতুন চমক নিয়ে আসলো আই ফোন টুয়েলভ

কিভাবে সেটিং করলে আইডি নষ্ট হবে না

সেটিং পরিবর্তন না করার ফল। যদিও অনেকেই জানেন,
কিন্তু যারা জানেন না তাদের জন্য
নিচে কিছু সেটিং এর নিয়ম
দিলাম।

১. ফেসবুক setting এ যান এরপর timeline and
tag এ যান, এরপর who can post on your
timeline?

 এখানে ক্লিক করে only me
করে রাখুন, এতে করে কেউ আপনার
টাইম লাইনে কিছু পোস্ট করতে
পারবে না।

২.অনেকেই ট্যাগ এর শিকার হোন,
অন্যের ছবি নিজের ওয়ালে
দেখায়।

 এ জন্য একই সেটিং এ গিয়ে
দেখুন review tag নামে দুটো অপশন
আছে,

সেটা on করুন, এতে করে কেউ
ট্যাগ করার আগে আপনার অনুমতি
লাগবে।

৩. নতুন ফেসবুক আইডি যারা খুলবেন
তারা ফ্রেন্ড রিকুয়েস্ট কম
পাঠাবেন,।

৪. দিনের মধ্যে একসেপ্ট না করলে
ক্যানসেল করে দিন, নয়ত ফটো
ভেরিফাই এর ঝামেলায় পড়বেন। .
 

ফেসবুক আইডি সুরক্ষিত রাখার টিপস

উপরে বলা পদক্ষেপগুলো গ্রহন করুন, আপনার আইডি আর হ্যাক হবেনা । আমরা আইডিতে ঢুকে প্রথমে মেসেজ/নোটিফিকেসন চেক করি । যেটা অভ্যাসগত অনেক বড় একটা ভুল । প্রথমে Trusted Contact চেক দিন, Email চেক দিন, Phone number চেক দিন । এসব বিষয় সবসময় খেয়াল রাখুন । আপনার আইডি আর হ্যাক হবেনা।

ফেসবুক সম্পর্কে আরো আপডেট পেতে আমার ওয়েবসাইট পহেলা ডট ইনফো এর সাথে থাকুন, এবং আমার ওয়েবসাইট ভিজিট করুন

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *