বিকাশ পিন লক হলে করণীয়

আমরা সবাই কম বেশ বিকাশ ব্যবহার করে থাকি, তাই বিকাশে বিভিন্ন রকম সমস্যা দেখা দিতে পারে। তার মধ্যে সবচেয়ে বেশি যে সমস্যা দেখা দেয়, তা হলো বিকাশ পিন লক হওয়া। তাই বিকাশ পিন লক হলে করণীয়

বিকাশ পিন লক হলে সবচেয়ে বড় সমস্যা হলো আপনার বিকাশ একাউন্ট থাকা টাকা আপনি তুলতে পারবেন না৷

 বিকাশে পিন লক হয় কেন

বিকাশ পিন লক হওয়ার অনেক কারন আছে, তার মধ্যে যে কারণ গুলো বেশি হয় সে গুলো বললাম।

একটি কারণ হলো ভুল পিন দেওয়া আপনার একাউন্টে   ব্যালেস চেক করার সময় বা কত টাকা আছে তা জানতে আপনি আপনার একাউন্টে ডুকতে ভুল পিন দেন, আবার যদি চার বারের বেশি ভুল পিন দেন, তা হলে আপনার বিকাশের পিন লক হয়ে যাবে ।

আপনি যদি একাধিকবার একই নাম্বারে 15 মিনিটের মধ্যে রিচার্জ করতে চান। তাহলে আপনার পিন ব্লক হওয়ার সম্ভাবনা থাকে। ইত্যাদি।

 দুইটি কারণে  সবচেয়ে বেশি বিকাশ একাউন্ট লক হয়ে থাকে; এবং এই বিকাশ পিন লক কখনো সাময়িক সময়ের জন্য হতে পারে বা কখনো পার্মানেন্ট।

সাময়িক সময়ের জন্য যদি আপনার বিকাশ পিন লক হয়ে যায় তাহলে আপনি এক ঘণ্টা বা তারও কম বেশী সময় অপেক্ষা করার পরে আবার পুনরায় সঠিক পিন দিয়ে একাউন্টে লগইন করতে পারবেন।

বিকাশ পিন লক হলে করণীয়

বিকাশ পিন লক হয়ে গেলে পিন নাম্বার আবার আনব্লক করার জন্য বিভিন্ন মেথডস রয়েছে। বিকাশ পিন লক হলে করণীয় সম্পর্কে নিচে আলোচনা করা হলোঃ

প্রথমে নিশ্চিত হয়ে নিন যে আপনার পিন নাম্বার আসলেই ব্লক হয়েছে কিনা।যখন আপনি বিকাশ একাউন্ট পিন লক হয়ে গেছে,

 এই সম্পর্কে নিশ্চিত হয়ে যাবেন; তখন আপনাকে 16247 এই নাম্বারে কল দিতে হবে।কল দেয়ার পর একজন কাস্টমার প্রতিনিধি আপনার সাথে সম্পৃক্ত হবে,

 এবং সে আপনার সমস্যা সম্পর্কে জানতে চাইবে; বিকাশ পিন লক হয়ে গেছে এটা তাদেরকে জানাতে হবে।যখনই আপনি,

এই নাম্বারে কল দিবেন তখন আপনার বিকাশ একাউন্ট অপেন##@@ সম্পর্কিত ডকুমেন্টগুলো দিতে হবে।

অর্থাৎ যে ডকুমেন্ট দিয়ে আপনি অ্যাকাউন্ট খুলেছিলেন।যখন আপনি আপনার ডকুমেন্টস সম্পর্কে যাবতীয় তথ্য দিয়ে দিবেন,

তখন তারা আপনাকে আরো দুইটি প্রশ্ন জিজ্ঞেস করতে পারে। যার মধ্যে থেকে একটি হলোঃ আপনার সর্বশেষ লেনদেন সম্পর্কে।

এছাড়াও তারা আপনাকে আপনার বিকাশ একাউন্ট এর বর্তমান ব্যালেন্স সম্পর্কে প্রশ্ন করতে পারে; যদি এ সম্পর্কে,

আপনি না জানেন তাহলে বলবেন- আমি কিভাবে জানবো আমার বিকাশ পিন ব্লক হয়ে গেছে তো?

উপরে উল্লেখিত প্রশ্নগুলোর জবাব আপনাকে না দিলেও হবে; আপনি শুধুমাত্র আপনার এনআইডি,

 কার্ডের ইনফর্মেশন এবং আপনার বিকাশ একাউন্ট সম্পর্কিত তথ্য দিলে এই কাজটি হয়ে যাবে।

উপরের নিয়ম অনুযায়ী কাজ করলে আপনার বিকাশ পিন লক হলে তা খুব সহজে পিরে আনতে পারবেন।

আরো পড়ুন --- বিকাশ একাউন্ট খোলার নিয়ম 

বিকাশ ব্যালেন্স চেক করার নিয়ম

বিকাশ ব্যালেন্স চেক করার জন্য প্রথমে ডায়াল করুন *247#। ডায়াল করার পর নিচের নয়টি অপশন আসবে।

  1. Send Money
  2. Send Money to Non-bKash User
  3. Mobile Recharge
  4. Payment
  5. Cash Out
  6. Pay Bill
  7. Recent Bonus
  8. My Bkash
  9. Reset PIN

এখন আপনার বিকাশ একাউন্ট চেক করতে চাইলে 8 লিখে Send করুন। নিচের সাতটি অপশন আসবে।

  1. Check Balance
  2. Request Statement
  3. Change Mobile Menu PIN
  4. Manage Beneficiary
  5. Update MNP info
  6. Helpline
    0.Main Menu

এখন 1 লিখে Send করলে Enter Menu PIN নামে একটি অপশন আসবে। এখানে আপনার PIN নম্বরটি লিখে Send করলেই বিকাশ একাউন্ট ব্যালেন্স চলে আসবে। এই হলো বিকাশে টাকা দেখার নিয়ম।

এই ধরনের আরো আপডেট পেতে আমার ওয়েবসাইট পহেলা ডট ইনফো এর সাথে থাকুন, এবং ভিজিট করুন

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *